প্রতিবেশি দেশগুলোর জন্য মোদি সরকার বি’পজ্জনক’- ইমরান খান

করো’না পরিস্থিতির মধ্যেই যু’দ্ধের উ’ত্তেজনা ছড়াচ্ছে ভারত ও চীন। সম্প্রতি ভারতের উত্তর

সীমান্তের লাদাখে চীনের অগ্রযাত্রা ও বাড়তি সেনা মোতায়েনকে কেন্দ্র করে দু’দেশের মধ্যে তীব্র উ’ত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে।

এমন পরিস্থিতিতে ভারতের বি’রুদ্ধে বড় অ’ভিযোগ আনলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

বুধবার (২৭ মে) মোদি সরকারের সমালোচনা করে টুইটারে ইমরান লিখেছেন, প্রতিবেশি দেশগুলোর জন্য মোদি সরকার বি’পজ্জনক হয়ে ওঠছে।

এজন্য় ভারতের ‘উদ্ধত সম্প্রসারণের নীতি’কেই দায়ী করেছেন তিনি। টুইটারে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী লিখেছেন,

চ’রম হি’ন্দুত্ববাদী মোদী সরকারের উদ্ধ’ত সম্প্রসারণের নীতি খানিকটা নাত্‍সির মতো, যা ভারতের প্রতিবেশী দেশগুলোর জন্য় বি’পজ্জনক হয়ে উঠছে।

নাগরিকত্ব আইনের মাধ্য়মে বাংলাদেশ, চীন, নেপাল সীমান্তে বি’রোধ আর পাকিস্তানের জন্য় ফলস ফ্ল্য়াগ অপারেশন।

এর আগেও জম্মু-কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা রদ ও সংশোধনী নাগরিকত্ব আইনের বি’রোধিতায় নয়া দিল্লির স’মালোচনা করেছিলেন ইমরান।

আর এখনো দেশটির বি’রুদ্ধে সমালোচনা শুরু করেছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

২০১৭ সালে ডোকলামে অচলাবস্থার পর সম্প্রতি পূর্ব লাদাখে প্য়াংগং সো এলাকায় মুখোমুখিভাবে অবস্থান করে ভারতীয় ও চীনা সেনা।

লাদাখে অচলাবস্থা নিয়ে ভারত ও চীনের সামরিক বাহিনীর মধ্য়ে ৬ দফায় আলোচনার প্রয়াস চালানো হয়, কিন্তু তাতে কোনো লাভ হয়নি। ‘প্রতিবেশি দেশগুলোর জন্য মোদি সরকার বি’পজ্জনক’- ইমরান খান গালওয়ান উপত্য়কায় প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার ওপর বিপুল পরিমাণে সেনা মোতায়েন করেছে চীন।

এর পাল্টা হিসেবে বাড়তি সেনা মোতায়েন করছে ভারতও। উত্তরাখণ্ড, সিকিম, অরুণাচলপ্রদেশ, লাদাখে অতিরিক্ত বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে বলে জানা গেছে ভারতের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে। সুত্র – ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস

Updated: 28/05/2020 — 6:31 PM