কোয়ারান্টাইন না মানায় ভোলায় প্রবাসীকে ধরে গণ-ধো’লাই

বৃহস্পতিবার বেলা আনুমানিক সাড়ে ১১টার দিকে ভোলা সদর হাই স্কুল সংলগ্ন

এলাকায় জনৈক মিজানুর রহমানের বড় ছেলে শামীম আজম এলাকাবাসীর দারা গণ-ধো’লাই খেয়েছেন।

শামীম গত ৩ দিন আগে দুবাই হতে ঢাকা হয়ে ভোলায় পাড়ি জমান।

সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক ১৪দিন বাধ্যতামূলক কোয়ারান্টাইনে থাকার কথা ছিল,

কিন্তু সেই নির্দেশনাকে সম্পূর্ণ বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে তিনি আশেপাশের আত্মীয় স্বজনের বাসাবাড়ি বাজারসহ বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন।

পরবর্তীতে এলাকাবাসী ও কিছু সোচ্চার তরুণ তাকে “কোয়ারান্টাইনে কেন নেই” বলে চ্যালেঞ্জ করেন,

উত্তে’জিত হয়ে শামীম বলেন- “আমার কোনো করোনা ভাইরাস নাই কোয়ারান্টাইনে কিল্লাই যাইতাম”।

এ কথা শোনার পর এলাকাবাসী উত্তে’জিত হয়ে তার ওপর চড়াও হন এবং উত্তম-মধ্যম দিয়ে তাকে পার্শ্ববর্তী একটি সিমেন্টের গোডাউনে হাত পা বেঁধে আটকে রাখে।

পরবর্তীতে এলাকার মুরুব্বিগণ মধ্যস্থতা করেন এবং কোয়ারান্টাইনে থাকবেন-

এমন মুচলেকা প্রদান করায় শামীমকে তার বাড়ির একটি কক্ষে ঢুকিয়ে রেখে আসেন।

এলাকার লোকজন আপাতত স্বস্তির নিঃশ্বাস ছাড়ছেন এবং ওই তরুণদের প্রশংসনীয় উদ্যোগ এর পক্ষে কথা বলছেন।

তাদের মতে সবাই যদি নিজের দায়িত্ব নিজে পালন করে এবং সেলফ কোয়ারান্টাইনে থাকে তাহলে দেশে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকানো যাবে।

Updated: 20/03/2020 — 10:45 AM